গণিতের ইতিহাস

Mathematics শব্দটি এসেছে গ্রীক শব্দ ‘Mathema’ থেকে। যার অর্থ knowledge, study, learning.

বর্তমানে “Mathematics” বা গণিত বলতে পরিমাণ, সংগঠন, স্থান ও পরিবর্তনের গবেষণাভিত্তিক বিশেষ ধরনের জ্ঞানকে বোঝায়।

 

গণিতের গোড়াপত্তন ও ক্রমবিকাশঃ

১৭শ শতক পর্যন্তও কেবল পাটীগণিত, বীজগণিত ও জ্যামিতিকে গাণিতিক শাস্ত্র হিসেবে গণ্য করা হত। সেসময় গণিত দর্শন ও বিজ্ঞানের চেয়ে কোন পৃথক শাস্ত্র ছিল না। গাণিতিক শাস্ত্রগুলির গোড়াপত্তন করেন প্রাচীন গ্রিকেরা, মুসলিম পণ্ডিতেরা এগুলি সংরক্ষণ করেন, এবং খ্রিস্টান পুরোহিতেরা মধ্যযুগে এগুলি ধরে রাখেন। ১৭শ শতকে এসে আইজাক নিউটন ও গটফ্রিড লাইবনিৎসের ক্যালকুলাস উদ্ভাবন এবং ১৮শ শতকে অগুস্তঁ লুই কোশি ও তাঁর সমসাময়িক গণিতবিদদের উদ্ভাবিত কঠোর গাণিতিক বিশ্লেষণ পদ্ধতিগুলির উদ্ভাবন গণিতকে একটি একক, স্বকীয় শাস্ত্রে পরিণত করে। তবে ১৯শ শতক পর্যন্তও কেবল পদার্থবিজ্ঞানী, রসায়নবিদ ও প্রকৌশলীরাই গণিত ব্যবহার করতেন।

গণনা করা ছিল আদিমতম কর্মকান্ড। আদিম মানুষেরা পশু, যন্ত্রপাতি কিংবা বাণিজ্যের হিসাব রাখতে গণতা করত। প্রায় নিশ্চিতভাবেই বলা যায় এ কাজে তারা গোনার জন্য দুই হাতের আঙ্গুল ব্যবহার করত। তাছাড়া প্রাচীন সভ্যতার নিদর্শনে দেয়ালের গায়ে দাগ কাটা দেখে ধারণা করা যায় যে, তারা এসব কাজে দাগ কেটেও হিসাব রাখার চেস্টা করত।

প্রাচীন মেসোপটেমিয়ার ব্যবলনীয়রা এবং নীল নদের অববাহিকায় প্রাচীন মিশরীয়রা সুশৃঙ্খল গণিতের প্রাচীনতম নিদর্শন রেখে গেছে। তবে সেগুলার সবকিছুতেই পাটিগণিতের প্রাধান্য ছিল।

মায়ানদের সংখ্যাপদ্ধতি Babylonian_numerals

 

এজন্য আমরা গণিতের জনক নির্ধারণ করতে পারি না। বাজারে বিসিএস সহ চাকরির কিছু বইতে আর্কিমিডিসকে গণিতের জনক বলা হয়েছে। যা মোটেও গ্রহণযোগ্য নয়। আর্কিমিডিস ছিলেন সর্বকালের সেরা একজন গণিতজ্ঞ। তিনি পাই -এর প্রায় নিখুঁত একটি মান নির্নয় করেন।

আর্কিমিডিসকে গণিতের জনক বলা যাবে না তার কারণঃ উনার জন্ম-২৮৭ বিসি এবং মৃত্যু-২১২ বিসি। কিন্তু গণিতের সূচনা মূলত লক্ষ লক্ষ বছর পূর্বে থেকেই। গণিতকে মাদার অফ সায়েন্স বলার এটাও একটা কারণ।

 

 গণিতের বিভিন্ন ক্ষেত্রে অবদানের স্বীকৃতিঃ

পাটিগণিতের জনক- আর্যভট্ট

বীজগণিতের জনক- আল খোয়ারিজেমী

জ্যামিতির জনক- ইউক্লিড

ক্যালকুলাসের জনক- স্যার আইজ্যাক নিউটন

লগারিদমের জনক- জন নেপিয়ার

সংখ্যাতত্ত্বের জনক- পিথাগোরাস

ত্রিকোণমিতির জনক- হিপ্পারকাস

পাই এর জনক- উইলিয়াম জোন্স

গ্রাফ তত্ত্বের জনক- লিওনার্ড অয়লার

 

গণিত বিভাগে পড়ে গণিতের ইতিহাস জানা অত্যন্ত জরুরী। গ্রাজুয়েশন শেষ করে ফেললেও গণিতের ইতিহাস এবং গণিতবিদদের সম্পর্কে খুব কমই জানি। তাই নেট ঘেটে কিছু তথ্য সবার সামনে তুলে ধরার প্রয়াস নিলাম। ভুলত্রুটি ধরিয়ে দিলে উপকৃত হব।

একেবারে সবকিছু লিখা সম্ভব না। তাই প্রাথমিক কিছু আলোচনা করলাম। চেস্টা করব ভবিষ্যতে বিভিন্ন গণিতবিদের অবদান সহ উনাদের জীবনী তুলে ধরতে। গণিতবিদদের কিছু মজার ঘটনাও মাথায় আছে। সেগুলাও দেয়ার চেস্টা করব।

-ভুলত্রুটি মার্জনীয়

দোলন
Author: দোলন

একরাশ স্বপ্ন নিয়ে গণিত বিভাগে ভর্তি হয়েছিলাম। কিন্তু তা ভেঙ্গে চুরমার হতে ১ সপ্তাহ সময়ও লাগে নি। এখন মনে হয় কোন মতে পাশ করে বের হতে পারলে বাঁচি।

Permanent link to this article: https://www.borgomul.com/emtiazmth/3294/


মন্তব্য করুন আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ব্যবহার করে

2 comments

  1. Good one

  2. ভালো লাগছে

মন্তব্য করুন

Discover more from বর্গমূল | Borgomul

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading