অ্যাবেল পুরষ্কার

অ্যাবেল পুরষ্কারগণিতে নোবেল ! কিভাবে সম্ভব ? কবে থেকে গণিতে নোবেল দেয়া শুরু করল ? উত্তর হল ২০০৩ সাল থেকে ! এই নোবেল হল অ্যাবেল পুরষ্কার যা অনেক সময় গণিতের নোবেল বলা হয় । গণিতের সবচেয়ে সম্মানজনক পুরষ্কার হচ্ছে অ্যাবেল পুরষ্কার । নরওয়ের রাজা কর্তৃক এই পুরষ্কার দেয়া হয় । নরওয়ের গণিতবিদ নীলস হেনরিক অ্যাবেলের নামানুসারে এর নামকরণ করা হয়েছে ।

অ্যাবেল পুরষ্কার প্রদানের ভাবনা কিন্তু সাম্প্রতিক নয় । ১৯০২ সালে হেনরিক অ্যাবেলের ১০০ তম জন্মবার্ষিকীতে সর্বপ্রথম গণিতবিদ সপাস লী এই পুরষ্কারের প্রস্তাবনা দেন যখন তিনি জানলেন নোবেল পুরষ্কারের তালিকায় গণিত অন্তর্ভুক্ত না । রাজা দ্বিতীয় অস্কার এই প্রকল্পে অনুদান দেয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেন এবং একটি কমিটি গঠন করা হয় । কিন্তু দুর্ভাগ্যবশত বিভিন্ন কারণে

এই প্রকল্পটি ব্যর্থ হয় এবং দীর্ঘদিন পর্যন্ত এটা বন্ধ ছিল । প্রায় এক শতক পর একটি গ্রুপ গঠন করা হয় এবং নরওয়ের প্রধানমন্ত্রীর নিকট প্রস্তাব পেশ করা হয় । এরপর নরওয়ে সরকার কর্তৃক এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয় যে ২০০২ সাল অর্থাৎ অ্যাবেলের ২০০ তম জন্মবার্ষিকীতে এই পুরষ্কার দেয়া হবে । যদিও ২০০৩ সালে প্রথম পুরষ্কারটি দেয়া হয় ।

 

প্রতি বছর মার্চ মাসে নরওয়ের সাইন্স একাডেমী পুরষ্কার বিজয়ীর নাম ঘোষণা করে । পাঁচ জন আন্তর্জাতিক গণিতবিদের সমন্বয়ে অ্যাবেল কমিটি গঠন করা হয় । এই কমিটি পরিচালনা করেন নরওয়ের একজন গণিতবিদ রাজনি পিনি । “আন্তর্জাতিক গণিত সংঘ” এবং “ইউরোপীয় গণিত সংঘ” এই কমিটির সদস্যদের নির্বাচন করে । এই কমিটির প্রত্যেকেই নিজেকে ছাড়া একজনকে মনোনয়ন দিতে পারেন তবে মনোনয়ন প্রাপ্ত ব্যক্তি অবশ্যই জীবিত হতে হবে । যদি পুরষ্কারের জন্য নির্বাচিত হওয়ার পর মারা যান তবে তাকে মরণোত্তর পুরষ্কার দেয়া হয় । এক বা একাধিক ব্যক্তিকে পুরষ্কার দেয়া হয় ।

 

অ্যাবেল পুরষ্কার প্রদানের জন্য প্রাথমিকভাবে নরওয়ের সরকার কর্তৃক ২৩ মিলিয়ন ডলারের একটি ফান্ড গঠন করা হয়েছে এবং অ্যাবেল পুরষ্কার বিজয়ীকে ১ মিলিয়ন ডলার সমমূল্যের অর্থ প্রদান করা হয় ।

 

  • ২০০৩ সাল থেকে প্রতিবছর অ্যাবেল পুরষ্কার দেয়া হচ্ছে । নীচে এর তালিকা দেয়া হলঃ
  • ২০০৩ সালে সর্বপ্রথম অ্যাবেল পুরষ্কার পান জেন পিয়েরে সেরে নামের একজন ফরাসী গণিতবিদ । টপোলজি, অ্যালজেব্রিক জিওমেট্রি , নাম্বার থিওরিতে উল্লেখযোগ্য অবদানের কারণে তাঁকে ২০০৩ সালে এই পুরষ্কার দেয়া হয় ।
  • ২০০৪ সালে ব্রিটিশ গণিতবিদ মাইকেল আতিয়াহ এবং মার্কিন গণিতবিদ ইসাডোর সিঙ্গার যৌথভাবে এই পুরষ্কার পান । ইনডেক্স থিওরেম আবিস্কার ও প্রমাণ করা; টপোলজি, জিওমেট্রি এবং এনালাইসিসকে একত্রিত করা এবং তাত্ত্বিক পদার্থবিজ্ঞানের সাথে গণিতের সম্পর্ক তৈরির অবদান স্বরূপ তাঁরা এই পুরষ্কার পান ।
  •  ২০০৫ সালে অ্যাবেল পুরষ্কার পান হাঙ্গেরীয় মার্কিন গণিতবিদ পিটার লাক্স । আংশিক ব্যবকলনীয় সমীকরণের ভিত্তি তৈরি করে এর সমাধান বের করার অবদান স্বরূপ তাঁকে এই পুরষ্কার দেয়া হয় ।
  •  ২০০৬ সালে সুইডিস গণিতবিদ লিনার্ট কার্লসন এই পুরষ্কার পান হার্মোনিক এনালাইসিস এবং ডাইনামিক্যাল সিস্টেমে অবদান রাখার জন্য ।
  •  ২০০৭ সালে অ্যাবেল পুরষ্কার পান মার্কিন গণিতবিদ এস. আর. শ্রীনিভাসা ভারাধান । প্রোবাবিলিটি থিওরি এবং লার্জ ডেভিয়েশন থিওরিতে অবদানের কারণে তাঁকে এই পুরষ্কার দেয়া হয় ।
  •  ২০০৮ সালে মার্কিন গণিতবিদ জন জি. থমসন এবং ফরাসী গণিতবিদ জ্যাকেস টিটস যৌথভাবে এই পুরষ্কার পান । অ্যালজেব্রা এবং গ্রুপ থিওরিতে বিশেষ অবদান রাখার জন্য তাঁরা পুরষ্কার পান ।
  •  ২০০৯ সালে পুরষ্কার পান রাশিয়ান গণিতবিদ মিখাইল গ্রমভ । জ্যামিতিতে বৈপ্লবিক অবদানের কারনেই তিনি এই পুরষ্কার  পান ।
  •  ২০১০ সালে পুরস্কার পান মার্কিন গণিতবিদ জন টি. টেট । নাম্বার থিওরিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান স্বরূপ তাঁকে এই পুরষ্কার দেয়া হয় ।
  • ২০১১ সালে পুরষ্কার পান মার্কিন গণিতবিদ জন মিলনর । টপোলজি, জিওমেট্রি, অ্যালজেব্রাতে তার তাৎপর্যপূর্ণ আবিষ্কারের কারণে এই পুরস্কার দেয়া হয় ।
  •  ২০১২ সালে পুরষ্কার পান মার্কিন গণিতবিদ আন্দ্রে সেমেরেদি । বিচ্ছিন্ন গণিত, সংখ্যাতত্ত্ব এবং তাত্ত্বিক কম্পিউটার বিজ্ঞানে অবদান স্বরূপ তাঁকে এই পুরষ্কার দেয়া হয় ।
  • ২০১৩ সালে অ্যাবেল পুরষ্কার পান বেলজিয়ান গণিতবিদ পিয়েরে ডেলিগ্নে । অ্যালজেব্রিক জিওমেট্রি, নাম্বার থিওরি এবং রিপ্রেজেন্টেশন থিওরিতে উল্লেখযোগ্য অবদান রাখার জন্য তিনি এই পুরষ্কার পান ।

 

অ্যাবেল পুরষ্কারে যে অর্থমূল্য দেয়া হয় তা শুধু আর্থিক কারণে নয় বরং প্রকৃতঅর্থে তা অনুপ্রাণিত করার জন্য, বিস্তৃত ভাবে গবেষণা করার জন্য, গণিতের নতুন দরজা উন্মুক্ত করার জন্য ।

তাই গনিতকে ভালোবাসো । এগিয়ে যাও গণিত নিয়ে । নোবেল না হোক অ্যাবেল আসবেই ।

Permanent link to this article: https://www.borgomul.com/arunav/340/


মন্তব্য করুন আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ব্যবহার করে

2 comments

  1. অসাধারণ লিখা। অ্যাবেল পুরস্কার অন্যতম হলেও গণিতে অসামান্য অবদানের জন্য বিভিন্ন পুরস্কার প্রচলিত আছে, কিছু কিছু পুরস্কার আছে গাণিতিক বিষয়ভিত্তিক।

    এধরনের পুরস্কার নিয়ে আরও অসাধারণ কিছু লেখার আশায় রইলাম… 🙂

  2. ধন্যবাদ ভাই 🙂

মন্তব্য করুন

Discover more from বর্গমূল | Borgomul

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading