Virtual reality এবং আমাদের ভবিষ্যত

লেখাটা কিভাবে শুরু করব সেটা ভাবলাম অনেকক্ষণ ধরে । সর্বশেষ লেখাটা লিখেছি মাস কয়েক আগে । আর প্রাণ খুলে লিখেছি বোধহয় বছরখানেক আগে । আজকে অল্প কিছু লেখার চেষ্টা করব । বেশি ভালো কিছু বের না হওয়াটাই স্বাভাবিক । আজকে virtual reality নিয়ে কিছু লেখার চেষ্টা করব ।

প্রথমেই আসা যাক, virtual reality কী এই ব্যাপারটাতে । এটাকে হুমায়ুন আহমেদের ভাষায় তুলে ধরতে গেলে বলতে হবে “পরাবাস্তবতা” । কিছুটা মিসির আলী ভাব আছে । কিন্তু ব্যাপারটা ভীষণ রকম কাঠখোট্টা । একটা মুভি আছে নাম Tron Legacy । নায়ক আটকে যায় একটা গেমের ভিতর । যেটা একটা সময় তার জীবন-মরন সমস্যা হয়ে দাঁড়ায় । আমাদের virtual reality তে মিসির আলীর রোমান্টিসিজম নেই আবার Tron legacy এর মত জীবন নিয়ে টানাটানি নেই । Virtual Reality হচ্ছে এমন একটা টেক যা আপনাকে আমাকে বাস্তবতার কাছাকাছি অভিজ্ঞতা দিবে কিন্তু সেটা আসলে বাস্তব না । Physics এবং আপনার আশেপাশের Dimension এর খেলা দিয়ে তৈরি কৃত্রিম বাস্তবতা । এটার সবচেয়ে জনপ্রিয় প্র্য়োগ হচ্ছে Oculus Rift । গেমিং এর বাস্তব অভিজ্ঞতা পাওয়া যাবে তাদের প্রোডাক্ট ব্যবহার করলে। এছাড়াও পর্ণোগ্রাফীতে Virtual reality এর প্রয়োগ শুরু হয়েছে ।

Developer রা চাইলে নিজেদের web product এও virtual reality এর প্রয়োগ করতে পারেন । এর জন্য আছে গুগলের Open source VR project . এটার Source code পাওয়া যাবে এখানে ।  যদিও গুগলের এই সার্ভিসটা সত্যিকারের virtual reality এর স্বাদ দিবে না । এটা অনেকটা  panoramic view ফটোগ্রাফী এর অভিজ্ঞতা দেয় ।

 

কয়েকদিন আগে ফেসবুকের F8 Developer conference হয়ে গেলো ।  সেখানে Mark Zuckerbarg তার ফেসবুক নিয়ে ২০২৬ সাল পর্যন্ত পরিকল্পনার কথা তুলে ধরেছেন ।  তার মতে ২০২০ এর পর পরই virtual reality সাধারণের মাঝে অনেক জনপ্রিয় হয়ে যাবে । এবং সহজলভ্যও হয়ে যাবে । তখন সবসময় VR দিয়ে সংযোগে থাকা মানুষদেরকে নিয়ে Facebook এর বেশ কিছু পরিকল্পনা আছে । এমনিতেই ফেসবুক এখন আমাদের চিন্তাভাবনা, সামাজিক দর্শন এবং রাজনৈতিক পালাবদলে বিশাল ভুমিকা রাখছে । সে হিসেবে ধরেই নেওয়া যায়, ২০২৬ সালের দিকে মার্ক জুকারবার্গের প্রোডাক্টেই বন্দী জীবন যাবে বেশিরভাগ মানুষের ।  Social media with VR experience is the creepiest thing that can happen to the humanity ever.

 

আরও অনেক কিছু লেখার ইচ্ছা ছিলো । এলোমেলো লেখাটার সমাপ্তি এখানেই টানলাম । সবাইকে বাংলা নববর্ষের শুভেচ্ছা । বর্গমুল পরিবার এবং আমার নিজের পক্ষ থেকে ।

এবং সবশেষে Virtual reality নিয়ে একটা মজার ভিডিও – https://www.youtube.com/watch?v=rmTIdt1A6TA

Md. Noor Faizur Reza
Author: Md. Noor Faizur Reza

আমার যে কাজ ভালো লাগে তা নিয়ে সারাদিন পরে থাকি !

Permanent link to this article: https://www.borgomul.com/rezanur/3920/


মন্তব্য করুন আপনার ফেসবুক প্রোফাইল ব্যবহার করে

1 comments

  1. ভারচুয়াল রিয়েলিটি এর স্বাদ নেবার জন্য খুব সহজ একটা উপায় হল গুগল কার্ডবোর্ড । চাইলে টিউটোরিয়াল দেখে এটা নিজেই খুব সহজে বানিয়ে নেয়া যায় অথবা রকমারি থেকে রেডিমেড অর্ডার দেয়া যায় (আমরা গুগল ডেভেলপার গ্রুপ এর পক্ষ থেকে এটা বানানো শিখেছিলাম) । এরকম একটা কিছু বানানো আর সেটা দিয়ে ভিআর দেখা খুবি মজার অভিজ্ঞতা। যদি সেটাও সম্ভব না হয় তবে দুধের স্বাদ ঘোলে মেটানর জন্য এখনকার যেকোনো আধুনিক স্মার্টফোন দিয়ে ইউটিউবে ঢুকলে অনেক ভিআর ভিডিও পাওয়া যায়। সেগুলা দেখা যেতে পারে।
    একটা ইন্টারেস্টিং তথ্য শেয়ার করবার লোভ সামলাতে পারছি না। গুগল গ্লাস এর মাধ্যমে মেডিকেল ফিল্ডে ভিআর কাজ করবার জন্য গবেষণা করছে Augmedix। এই কোম্পানিটার আর এন্ড ডি সেকশন কিন্তু আমাদের বাংলাদেশে

মন্তব্য করুন

Discover more from বর্গমূল | Borgomul

Subscribe now to keep reading and get access to the full archive.

Continue reading